মৌসুমের প্রথম শিরোপার সামনে বার্সেলোনা

সুপার সানডে রাত মাতাতে মাঠে নামছে লিওনেল মেসির বার্সেলোনা। স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালে অ্যাতলেটিক ক্লাবের মুখোমুখি হবে কাতালানরা। ইনজুরি কাটিয়ে এই ম্যাচে মাঠে নামার সম্ভাবনা রয়েছে লিওনেল মেসির। স্তাদিও ডি কার্তুজে দু’দলের ম্যাচটি মাঠে গড়াবে বাংলাদেশ সময় রাত ২টায়।

মেসিবিহীন বার্সেলোনাকে স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালে উঠতে হয়েছে টাইব্রেকার ভাগ্যে ভর করে। শিরোপার লড়াইয়ে অ্যাতলেটিকো ক্লাবের মুখোমুখি হওয়ার আগে দলের জন্য বড় সুখবর প্রাণভোমরা লিওনেল মেসি অনুশীলন করেছেন পুরো দমে।
এলএম টেনের ফেরা নিশ্চয়ই বড় স্বস্তি দলের জন্য। তাইতো রোনাল্ড কোম্যানের অনুশীলন শিবির উচ্ছ্বসিত। সতীর্থ বুস্কেটস তো বলেই দিলেন মেসি দলে থাকা মানে যে কোন শিরোপা জেতা অনেকটা সহজ হয়ে যাওয়া।

বার্সেলোনা মিডফিল্ডার সার্জিও বুস্কেটস বলেন, লিওনেল মেসি বিশ্বের সেরা ফুটবলার। ওর খেলা মানে আমাদের শিরোপা জেতার সম্ভাবনা দ্বিগুণ হওয়া। আশা করি লিও ফাইনালে মাঠে নামবে। এখন বাকি সিদ্ধান্ত ওর। কারণ সে তার শরীর সম্পর্কে ভালো জানে।
সুপার কাপে সুপার রেকর্ড কাতালানদের। সবচেয়ে বেশি ১৩টা ট্রফি আছে ন্যু ক্যাম্পে। যদিও গত বছর চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। তাই এই লড়াইটা শিরোপা পুনরুদ্ধারের। আর সেই লক্ষ্যে কোম্যান তার সেরা দলটাই পাচ্ছে বলা যাচ্ছে না। মেসি ফিরলেও, ফিলিপে কৌতিনিও, জেরার্ড পিকে, সার্জিও রবার্তো, আনসু ফাতিরা এখনো পুরো দমে ফিট নয়।
তবে ছন্দে ফেরা কাতালানরা সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে অপরাজিত ৯ ম্যাচে। তাছাড়া প্রতিপক্ষ যখন অ্যাতলেটিকো ক্লাব তখন স্বাভাবিকভাবেই ফেভারিট বার্সেলোনা। মেসি, ডেম্বেলে, গ্রিজম্যান, আলবারা জ্বলে উঠলে স্প্যানিশ সুপার কাপের ১৪ নম্বর শিরোপাটা বার্সার শো ক্যাসেই যাওয়ার কথা।
তবে ম্যাচটা ফাইনাল বলে সতর্ক রোনাল্ড কোম্যান। দল নিয়ে কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষায় যেতে চান না। সম্ভাব্য সেরা একাদশটাই মাঠে চাইছেন। সেই প্রত্যাশায় রয়েছেন ফুটবলারদের সেরা ছন্দের।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment