মুশফিক কেন ৭ নম্বরে নামলেন, জবাব দিলেন সাকিব

টি-২০ বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ডের ম্যাচে স্বাগতিক ওমানের বিপক্ষে ২৬ রানের জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। এই জয়ের ফলে বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে উঠার লড়াইয়ে টিকে রইল টাইগাররা। মাসকটের আল আমিরাত স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের দেওয়া ১৫৪ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১২৭ রান করতে পেরেছে ওমান। ওমানের ওপেনার যতিন্দর সিং ৪০ ও কেশ্যব প্রজাপতি ২১ রানের ইনিংস খেলেছেন। এছাড়া অন্য কেউ বলার মতো কিছু করতে পারেননি।

এদিকে ব্যাট হাতে মুশফিকুর রহিমের ফর্ম মোটেও ভালো যাচ্ছে না। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ সিরিজে রানের জন্য রীতিমত সংগ্রাম করেছেন। বিশ্বকাপের আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতি ম্যাচেও ব্যর্থ হয়েছেন। বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ডে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ফর্মে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। দুই ছক্কা ও এক চারে ৩৬ বলে ৩৮ রান করেন। ৩৮ রানে উইকেটে থিতু হয়েও সরাসরি বোল্ড হয়ে যান ক্রিস গ্রেভসের বলে।

পরের ম্যাচে অর্থাৎ ওমানের বিপক্ষে মুশফিককে নামানো হয়েছে ৭ নম্বরে। অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ নেমেছেন আটে।ম্যাচে বাংলাদেশ জয় পেলেও মুশফিকের এই ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। অনেকেই ভালো চোখে দেখছেন না।
কিন্তু তার আগেই এ বিষয়ে কথা বললেন ম্যাচ জয়ের নায়ক অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। মুশফিকের সাতে ব্যাট করানোকে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের খুবই সাধারণ চর্চা বলে উল্লেখ করেছেন।

ওমানের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে সাকিব বললেন, ‘পরিস্থিতি অনুযায়ী কোচ-অধিনায়ক যেটা ভালো মনে করেছেন তাদেরকেই পাঠানো হয়েছে। যারা ঐ পরিস্থিতি সামলানোর যোগ্য। একটা সময় ছিল যখন মনে হয়েছে ১৭০-১৮০ রানও করে ফেলতে পারতাম, যদি সবার ব্যাটিং ক্লিক করত। সে কারণেই অনেককে পরিবর্তন করে পাঠানো হয়েছে।‘টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এমন হয়েই থাকে। যখন একটা দল ১০-১১ ওভারে ১-২ উইকেট হারায় তখন ৬-৭ নম্বর ব্যাটসম্যান স্বাভাবিকভাবেই ওপরের দিকে চলে আসে। টি-টোয়েন্টিতে এটা খুবই সাধারণ চর্চা।

You May Also Like

About the Author: