তরুণদের জন্য আশীর্বাদ কোম্যান, অভিশাপ জিদান

রোনাল্ড কোম্যান বার্সালোনার কোচ হয়ে আসার পর দারুণ এক পরিবর্তন লক্ষ করা গেছে। দলে থাকা তরুণ প্লেয়ারদের বেশ ভালো ভাবেই যত্ন নিচ্ছেন তিনি। আর সেই তরুণরাই ধীরে ধীরে বার্সার মূল একাদশের সদস্য হয়ে উঠছে।

আনসু ফাতিকে দলের মূল সদস্য হিসেবে প্রথম খেলানো শুরু করেন কোম্যান। লেফট উইং তার জন্যই বরাদ্ধ করে দিয়েছিলেন। সেই প্রতিদানও দিয়েছিল এই তরুণ। ইনজুরিতে পরার আগে বার্সার সেরা পারফর্মার ছিলেন তিনিই।

আরেক তরুণ তারকা পেড্রি তো কৌতিনহোর জায়গাই নষ্ট করে দিয়েছে। মেসির সঙ্গে পেড্রির রসায়ন জমে উঠেছে দারুণ ভাবে যা বার্সার জন্য আশীর্বাদ। এছাড়াও ত্রিনকাও সহ আরও কিছু তরুণ তারকাদের নিয়ে কাজ করছেন তিনি।

একেবারেই ভিন্ন রুপ রিয়াল মাদ্রিদ কোচ জিদানের। তার অধিনে তরুণ তারকারা সুযোগ পাচ্ছেনা নিজেদের প্রমানের। সুযোগ পাচ্ছে সব বয়স্করাই। ক্রুস, মড্রিচ, বেনজামা, রামোস, ভারানেরা দলের নিয়মিত সদস্য। তারা যে খারাপ করছে সেটাও নয়, কিন্তু কিছু কিছু ম্যাচে তাদের বিশ্রাম দিয়ে প্রথম একাদশে খেলার যোগ্য ভালভার্দে, ওডেগার্ড, মিলিটাওদের সুযোগ দেয়া যেত যা করছেনা জিদান।

আর এসব দেখে সাবেক বার্সালোনা ও ব্রাজিলিয়ান তারকা রিভালদো মনে করেন যে কোম্যান তরুণদের সঙ্গে ভালো কাজ করছে, বিপরীত অবস্থান জিদানের।

রিভালদো বলেন, “আমি সবসময় বলি যে তরুণদের উপর চাপের বোঝা বাড়িয়ে না দেয়াটা গুরুত্বপূর্ন। আমার মনে হয় কোম্যান সেখানে খুবই ভালো করছে। তরুণ কিন্তু ট্যালেন্টেড প্লেয়ারদের তুলে এনে মেসি, বুসকেটস বা আলভাদের সঙ্গে খেলাচ্ছে। এজন্য কোম্যান অবশ্যই অভিনন্দন পেতে পারে এবং তার নেতৃত্বের জন্য সম্মানিত হতে পারে।

“আমি জানিনা এর পেছনে কি রয়েছে, কিন্তু জিদান একেবারেই ব্যতিক্রম করছে। ভালভার্দে, রোদ্রিগো, ভিনিসিয়াসদের সে যেভাবে ব্যবহার করছে এটা একেবারেই বিপরীত।

“আমি পত্রিকায় পড়েছি যে জিদান কথা বলার সময় ভিনিসিয়াস মোবাইলে তাকিয়েছিল, তাই তাকে শাস্তি দেয়া হচ্ছে। এটা কোন সমাধান হতে পারেনা। একটা প্লেয়ারকে না খেলিয়ে কোন সমস্যার সমাধাণ করা যায় না। কারণ এতে করে তুমি তোমার দলকেই বিপদে ফেলছো এবং জিদান সেটাই করছে।

“এর অর্থ হচ্ছে আপনি এমন এক প্লেয়ারকে বসিয়ে দিচ্ছেন যে অনেকগুলো ম্যাচে সেরা পারফর্মার ছিল। এটা অগ্রহনযোগ্য।”

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment