রেফারির সিদ্ধান্ত যে বিতর্কিত ছিল তার প্রমাণ পেয়েছে বাংলাদেশ কিন্তু করা কিছু নেই এখন

মাঠে রেফারির সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। সিদ্ধান্ত ভুল হলেও তা উপেক্ষার সুযোগ নেই ফুটবলে। আন্তর্জাতিক ফুটবলের সেই রীতি মেনেই বুধবার সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে নেপালের বিপক্ষে ম্যাচটি শেষ করেছে বাংলাদেশ।

দুহটি সিদ্ধান্ত; একটি গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকোকে লাল কার্ড, এরপর বাংলাদেশের বিপক্ষে পেনাল্টি। এ নিয়ে ভিন্ন মত আছে। তবে বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার সত্যজিৎ দাশ রুপুর মত একটাই- পেনাল্টির সিদ্ধান্ত ছিল বিতর্কিত।

মালদ্বীপ থেকে পাঠানো এক ভিডিওবার্তায় ম্যানেজার বলেছেন, ‘বিতর্কিত এ কারণে বলছি, ৮৬ মিনিটে যে ঘটনার মধ্য দিয়ে পেনাল্টিটা দেয়া হয়েছে আমাদের বিরুদ্ধে, পরবর্তীতে তার ভিডিওতে দেখেছি।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘বলের কাছাকাছি ছিলেন সাদ উদ্দিন। যদি সাদ ফাউল করে থাকেন এবং তার বিরুদ্ধে ফাউলের বাঁশি বাজিয়ে থাকেন রেফারি তাহলে কার্ড কেন বিশ্বনাথকে দেওয়া হলো? এই কার্ডেই প্রশ্ন উঠছে, রেফারি প্রকৃতভাবে সেটা দেখেছেন কি না। যেহেতু রেফারির নির্দেশনা ফলো করে খেলতে হবে, তাই আমরা ম্যাচ শেষ করে এসেছি।’

ভিডিওবার্তার শুরুতেই ম্যানেজার বলেন, ‘আজকে কথা বলতে চেয়েছিলাম ফাইনাল নিয়ে। কিন্তু বলতে হচ্ছে আমরা ফাইনালে নেই, সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে বিদায় নিয়েছি তা নিয়ে। এটা কেবল আমাদের কাছেই নয়, সারা দেশবাসীর কাছেই অপ্রত্যাশিত।’

খেলায় যে কোন ফল হতে পারে উল্লেখ করে সত্যজিৎ দাশ রুপু বলেছেন, ‘৯০ মিনিটের ম্যাচে যে কোন ফল হতে পারে। তবে ফলটা যদি বিতর্কিত সিদ্ধান্তের মাধ্যমে হয় সেটা আমাদের সবার জন্যই কষ্টের। গতকাল রাত থেকে আজ সারাদিন খেলোয়াড়রা মনমরা হয়ে ছিল। রাতে দেখেছি অনেকেই স্বাভাবিকভাবে খাবার খেতে পারেনি।’

সংশ্লিষ্ট খবর