রেফারির সিদ্ধান্ত নিয়ে করা জামাল ভূইয়ার মন্তব্যে কেপে উঠলো ফুটবল বিশ্ব

দীর্ঘ ১৬ বছর পর সাফের ফাইনালে খেলার জন্য বাংলাদেশের দরকার ছিলো নেপালের বিপক্ষে জয়। ম্যাচের নবম মিনিটে গোল করে লিডও নেয় বাংলাদেশ।

তবে শেষ রক্ষা আর হলো না। শেষ মূহুর্তে রেফারির বির্তকিত এক সিদ্ধান্তে স্বপ্নভঙ্গ হয় লাল-সবুজদের।

শুরুর দিকে একটু অগোছালো মনে হলেও দ্রুত ম্যাচে ফিরে বাংলাদেশ। নিজেদের গুছিয়ে নিয়ে আক্রমণ করে নেপালের গোলপোস্টে। লক্ষ্য ছিলো জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় গোল।

গোলের জন্য অবশ্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি বাংলাদেশের।ছবিঃ টুইটারম্যাচের নবম মিনিটে জামাল ভূঁইয়ার ফ্রি কিকে হেড থেকে গোল করে বাংলাদেশের সমর্থকদের আনন্দে মাতান সুমন রেজা।

এরপর দুদল বেশ কয়েকবার সুযোগ পেলেও গোলের দেখা পায়নি। সময় যত গড়াচ্ছিলো বাংলাদেশের সমর্থকেরা ততই আশায় বুক বাঁধছিলো।

তবে ১৬ বছর পর সাফের ফাইনাল খেলার স্বপ্নে জল ঢেলে দেন উজবেকিস্তানের রেফারি। ৮৬ তম মিমিটে বক্সের মধ্যে অঞ্জন বিষ্টাকে হেড করতে বাধা দিতে গিয়েছিলেন সাদউদ্দিন।

কিন্তু তার বিরুদ্ধে অঞ্জনকে ধাক্কা দেওয়ার অভিযোগ এনে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি।

রেফারির বিতর্কিত এই সিদ্ধান্তের বিপক্ষে আবেদন জানালেও মন গলেনি তার। শেষ পর্যন্ত পেনাল্টি থেকে গোল করে নেপাল কে সমতায় ফেরান অঞ্জন বিষ্টা।

টুইটাররেফারির এমন বিতর্কিত সিদ্ধান্তে ম্যাচ শেষে বাংলাদেশ অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া জানান বাংলাদেশের বিপক্ষে রেফারি ডাকাতি করেছেন।

” আমার মনে হচ্ছে যে আমাদের বড় ডাকাতি করা হয়েছে আজকে”তাছাড়াও সাফে “ভিএআর”না থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন জামাল। ” “এটা লজ্জ্বার বিষয় যে সাফে ভিএআর নেই” রেফারি ছাড়া সবাই দেখতে পেয়েছে যে ওটা পেনাল্টি ছিলো না”

সংশ্লিষ্ট খবর