লিগ পর্ব শেষে ঘোষণা করা হলো আইপিএলের সেরা একাদশ, কলকাতা থেকে জায়গা পেল যারা

লিগের খেলা শেষ। প্লে-অফ উইকের আগে লিগের পারফর্ম্যান্সের নিরিখে আইপিএল ২০২১-এর সেরা দল বেছে নিলে কারা সুযোগ পেতে পারেন প্রথম একাদশে? ব্যাটিং অর্ডার অনুযায়ী তুলে ধরা হল তালিকা।

1/11ওপেনে লোকেশ রাহুল অটোমেটিক চয়েজ। তিনি ১৩ ম্যাচে ৬২.৬০ গড়ে ৬২৬ রান সংগ্রহ করেছেন। হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন ৬টি।

2/11দ্বিতীয় ওপেনার হিসেবে রুতুরাজ গায়কোয়াড়কে অস্বীকার করা যাবে না। যদিও পরের দিকে সুযোগ পেয়ে নজর কেড়েছেন কেকেআরের বেঙ্কটেশ আইয়ার। রুতুরাজ ১৪ ম্যাচে ৪৪.৪১ গড়ে ৫৩৩ রান সংগ্রহ করেছেন। ১টি সেঞ্চুরি ও ৩টি হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন তিনি।

3/11তিন নম্বরে উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান সঞ্জু স্যামসন জায়গা করে নেবেন। তিনি ১৪ ম্যাচে ৪০.৩৩ গড়ে ৪৮৪ রান সংগ্রহ করেছেন। ১টি সেঞ্চুরি ও ২টি হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন তিনি।

4/11চার নম্বরে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলই সেরা বিকল্প। তিনি ১৪ ম্যাচে ৪৫.২৭ গড়ে ৪৯৮ রান সংগ্রহ করেছেন। ৩টি উইকেটও নিয়েছেন গ্লেন।

5/11ব্যাটিং অল-রাউন্ডার হিসেবে মইন আলি জায়গা করে নেবেন দলে। তিনি ১৩ ম্যাচে ৩০৪ রান করেছেন। উইকেট নিয়েছেন ৫টি। যদিও বোলিং অল-রাউন্ডার হিসেবে দলে জায়গা করে নেওয়ার যোগ্য দাবিদার জেসন হোল্ডার। তিনি ৮ ম্যাচে ৮৫ রান করেছেন। উইকেট নিয়েছেন ১৬টি।

6/11অল-রাউন্ডার হিসেবে রবীন্দ্র জাদেজার জায়গা পাকা। তিনি ২২৭ রান করেছেন। উইকেট নিয়েছেন ১০টি।

7/11স্পিনার হিসেবে বরুণ চক্রবর্তীর লড়াই যুজবেন্দ্র চাহালের সঙ্গে। দু’জনেই ১৪ ম্যাচে ১৬টি করে উইকেট নিয়েছেন।

8/11বিদেশি স্পিনার হিসেবে রশিদ খানের জায়গা পাকা। তিনি ১৪ ম্যাচে ১৮টি উইকেট নিয়েছেন। ব্যাটের হাতটাও মন্দ নয়।

9/11১৪ ম্যাচে ৩০টি উইকেট নেওয়া হার্ষাল প্যাটেল বোলিং লাইন-আপে অটোমেটিক চয়েজ। ব্যাটও করতে পারেন।

10/11ভারতীয় পেসার হিসেবে আবেশ খানের লড়াই অর্শদীপ সিংয়ের সঙ্গে। আবেশ ১৪ ম্যাচে ২২টি উইকেট নিয়েছেন। অর্শদীপ ১২ ম্যাচে নিয়েছেন ১৮টি উইকেট।

11/11বিদেশি পেসার হিসেবে এনরিখ নরকিয়াই এক নম্বর পছন্দ। তিনি ৬ ম্যাচে ৯টি উইকেট নিয়েছেন। তবে তাঁকে টক্কর দিতে পারেন কেকেআরের লকি ফার্গুসন ও রাজস্থানের মুস্তাফিজুর রহমান। ফার্গুসন ৫ ম্যাচে ১০টি ও মুস্তাফিজুর ১৪ ম্যাচে ১৪টি উইকেট নিয়েছেন।

You May Also Like

About the Author: