মুস্তাফিজের রাজস্থানের প্লে অফে যেতে আর মাত্র একটি পথ বেঁচে আছে

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) বর্তমান সংস্করণের প্রথম পর্ব ইতিমধ্যেই শেষ হচ্ছে। টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী ৮ টি দলের মধ্যে কোনোটির একটি ম্যাচ এবং কোনোটির দুটি ম্যাচ বাকি রয়েছে।

এবারের আসরে ইতোমধ্যেই প্লে অফের জন্য তিন দল নির্ধারিত হয়ে গেছে, বাকি কেবল একটি। সর্বপ্রথম দল হিসেবে এবার প্লে অফ নিশ্চিত করেছে মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস। তিন ম্যাচ হাতে রেখেই প্লে অফ নিশ্চিত করে ফেলা চেন্নাইর সামনে আরও বাকি রয়েছে দুটি ম্যাচ।

প্লে অফের দ্বিতীয় দল হিসেবে রয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস। এবারের আসরে হট ফেবারিট দিল্লিও চেন্নাইর সমান ১৮ পয়েন্ট নিয়েই প্লে অফ নিশ্চিত করে ফেলে। বিরাট কোহলির দল রয়্যাল চেলেঞ্জার্স বেঙ্গালোর তৃতীয় দল হিসেবে প্লে অফ নিশ্চিত করেছে চলতি আসরে।

ইতোমধ্যেই তিন দল নিশ্চিত হয়ে গেলেও চতুর্থ দল হিসেবে কারা প্লে অফে খেলবে তা এখনও অনিশ্চিত। কেননা চতুর্থ দল হিসেবে টিকে থাকার লড়াইয়ে রয়েছে চারটি দল। তারা হলো কলকাতা নাইট রাইডার্স, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স, পাঞ্জাব কিংস এবং রাজস্থান রয়্যালস। তবে কোন সমীকরণে প্লে অফে খেলতে পারে রাজস্থান তা এবার দেখে নেয়া যাক।

১২ ম্যাচে রাজস্থানের পয়েন্ট রয়েছে ১০। তাদের অবস্থান এখন টেবিলের ছয় নম্বরে। অন্যদিকে চার নম্বরে থাকা কলকাতা নাইট রাইডার্সের পয়েন্ট হচ্ছে ১২। তবে নাইটদের হাতে রয়েছে আর একটি ম্যাচ। বিপরীতে রাজস্থানের হাতে রয়েছে দুইটি ম্যাচ। এই দুই ম্যাচে রাজস্থান মুখোমুখি হবে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এবং কলকাতা নাইট রাইডার্সের।

যদি কলকাতার বিপক্ষে রাজস্থান জয় পায় তাহলে পয়েন্ট দাঁড়াবে ১২। সেই সাথে কলকাতা হারের কারনে তাদের সাথে নতুন কোনো পয়েন্ট যুক্ত না হওয়ায় তাদের পয়েন্টও থাকবে ১২। যেহেতু রানরেটের দিক থেকে কলকাতা বেশ খানিকটা এগিয়ে তাই এক্ষেত্রে প্লে অফে যাওয়ার সুযোগ মিলতে পারে নাইটদের। বিপরীতে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষেও জয় তুলে নিতে পারলে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে প্লে অফ নিশ্চিত করার সুযোগ রয়েছে রাজস্থানের।
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) বর্তমান সংস্করণের প্রথম পর্ব ইতিমধ্যেই শেষ হচ্ছে। টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী ৮ টি দলের মধ্যে কোনোটির একটি ম্যাচ এবং কোনোটির দুটি ম্যাচ বাকি রয়েছে।

এবারের আসরে ইতোমধ্যেই প্লে অফের জন্য তিন দল নির্ধারিত হয়ে গেছে, বাকি কেবল একটি। সর্বপ্রথম দল হিসেবে এবার প্লে অফ নিশ্চিত করেছে মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস। তিন ম্যাচ হাতে রেখেই প্লে অফ নিশ্চিত করে ফেলা চেন্নাইর সামনে আরও বাকি রয়েছে দুটি ম্যাচ।

প্লে অফের দ্বিতীয় দল হিসেবে রয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস। এবারের আসরে হট ফেবারিট দিল্লিও চেন্নাইর সমান ১৮ পয়েন্ট নিয়েই প্লে অফ নিশ্চিত করে ফেলে। বিরাট কোহলির দল রয়্যাল চেলেঞ্জার্স বেঙ্গালোর তৃতীয় দল হিসেবে প্লে অফ নিশ্চিত করেছে চলতি আসরে।

ইতোমধ্যেই তিন দল নিশ্চিত হয়ে গেলেও চতুর্থ দল হিসেবে কারা প্লে অফে খেলবে তা এখনও অনিশ্চিত। কেননা চতুর্থ দল হিসেবে টিকে থাকার লড়াইয়ে রয়েছে চারটি দল। তারা হলো কলকাতা নাইট রাইডার্স, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স, পাঞ্জাব কিংস এবং রাজস্থান রয়্যালস। তবে কোন সমীকরণে প্লে অফে খেলতে পারে রাজস্থান তা এবার দেখে নেয়া যাক।

১২ ম্যাচে রাজস্থানের পয়েন্ট রয়েছে ১০। তাদের অবস্থান এখন টেবিলের ছয় নম্বরে। অন্যদিকে চার নম্বরে থাকা কলকাতা নাইট রাইডার্সের পয়েন্ট হচ্ছে ১২। তবে নাইটদের হাতে রয়েছে আর একটি ম্যাচ। বিপরীতে রাজস্থানের হাতে রয়েছে দুইটি ম্যাচ। এই দুই ম্যাচে রাজস্থান মুখোমুখি হবে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এবং কলকাতা নাইট রাইডার্সের।

যদি কলকাতার বিপক্ষে রাজস্থান জয় পায় তাহলে পয়েন্ট দাঁড়াবে ১২। সেই সাথে কলকাতা হারের কারনে তাদের সাথে নতুন কোনো পয়েন্ট যুক্ত না হওয়ায় তাদের পয়েন্টও থাকবে ১২। যেহেতু রানরেটের দিক থেকে কলকাতা বেশ খানিকটা এগিয়ে তাই এক্ষেত্রে প্লে অফে যাওয়ার সুযোগ মিলতে পারে নাইটদের। বিপরীতে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষেও জয় তুলে নিতে পারলে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে প্লে অফ নিশ্চিত করার সুযোগ রয়েছে রাজস্থানের।

তবে যদি কলকাতার বিপক্ষে রাজস্থান হেরে বসে ও মুম্বাইর বিপক্ষে জয় পায় তাহলে ছিটকে যেতে হবে প্লে অফের আগেই। কেননা তখন রাজস্থানের পয়েন্ট ১২ থাকলেও কলকাতার পয়েন্ট দাঁড়াবে ১৪। তাই প্লে অফে খেলতে দুই ম্যাচেই জয়ের কোনো বিকল্প নেই রাজস্থান রয়্যালসের।
তবে যদি কলকাতার বিপক্ষে রাজস্থান হেরে বসে ও মুম্বাইর বিপক্ষে জয় পায় তাহলে ছিটকে যেতে হবে প্লে অফের আগেই। কেননা তখন রাজস্থানের পয়েন্ট ১২ থাকলেও কলকাতার পয়েন্ট দাঁড়াবে ১৪। তাই প্লে অফে খেলতে দুই ম্যাচেই জয়ের কোনো বিকল্প নেই রাজস্থান রয়্যালসের।

You May Also Like

About the Author: