প্লে-অফে আরসিবি, হুঙ্কার দিলেন কোহলী

গত মরসুমের পর এই মরসুমেও দুরন্ত ছন্দে বিরাট কোহলীর আরসিবি। রবিবার পঞ্জাব কিংসকে হারিয়ে দুই ম্যাচ বাকি থাকতেই প্লে-অফে উঠে গিয়েছে তারা। চেন্নাই এবং দিল্লির পর তৃতীয় দল হিসেবে প্লে-অফে গেল বেঙ্গালুরু। স্বাভাবিক ভাবেই ম্যাচের পর খুশি কোহলী। পাশাপাশি জানালেন, এ বার তাঁরা আরও ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলতে চান।

গত মরসুমের পর এই মরসুমেও দুরন্ত ছন্দে বিরাট কোহলীর আরসিবি। রবিবার পঞ্জাব কিংসকে হারিয়ে দুই ম্যাচ বাকি থাকতেই প্লে-অফে উঠে গিয়েছে তারা। চেন্নাই এবং দিল্লির পর তৃতীয় দল হিসেবে প্লে-অফে গেল বেঙ্গালুরু। স্বাভাবিক ভাবেই ম্যাচের পর খুশি কোহলী। পাশাপাশি জানালেন, এ বার তাঁরা আরও ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলতে চান। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে বলেন, “অসাধারণ লাগছে। ২০১১-র পর এ বার হাতে একাধিক ম্যাচ থাকা সত্ত্বেও প্লে-অফে উঠে গেলাম। ১২ ম্যাচের মধ্যে ৮টা জয় সত্যিই অসাধারণ।

এখন প্রথম দুইয়ে শেষ করতে চাই আমরা। আমাদের হাতে তার জন্য আরও দুটো সুযোগ রয়েছে। আরও ভয়ডরহীন ভাবে এ বার ক্রিকেট খেলতে পারব।”

গত কয়েকটা ম্যাচেই শুরুটা ভাল হচ্ছে আরসিবি-র। ওপেনিং জুটিতে রানও উঠছে ভাল। সেই প্রসঙ্গে কোহলীর মন্তব্য, “যখন স্কোরবোর্ডে দেখি কোনও উইকেট পড়েনি, তখন ঝুঁকি নেওয়ার ইচ্ছে অনেকটা বেড়ে যায়। সেটাই গত কয়েক ম্যাচ ধরে আমি এবং দেবদত্ত করছি। এই মাঠে ১৫-২০ রানও খুব গুরুত্বপূর্ণ। তবে হারি বা জিতি, আমাদের শেখার প্রক্রিয়া কখনও থামে না। প্রতিনিয়ত উন্নতি করতে চাই।”

জয়ের পিছনে বোলারদেরও ভূয়সী প্রশংসা করেছেন কোহলী। বলেছেন, “টেস্ট ক্রিকেটে সফল হওয়ার পর থেকেই সিরাজের উত্থান দেখে দুর্দান্ত লাগছে। হর্ষলকে দলে নেওয়াতেও আমাদের অনেক লাভ হয়েছে। যুজবেন্দ্র চহাল ভাল খেলছে, শাহবাজও তাই। যদি বোলাররা এগিয়ে আসে, তাহলে যে কোনও মরসুমই ভাল কাটবে।”

You May Also Like

About the Author: