ব্রেকিং নিউজঃ মেসিহীন বার্সাকে লজ্জা জনক ভাবে হাড়ালো বায়ার্ন

bayern munich 300921 01

মাঝে এক ম্যাচ বিরতি দিয়ে আবারও জালের দেখা পেলেন রবের্ত লেভানদোভস্কি। দিনাভো কিয়েভের জালে গোল উৎসব করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে টানা দ্বিতীয় তুলে নিল বায়ার্ন মিউনিখ।
আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় বুধবার রাতে ‘ই’ গ্রুপের ম্যাচে ৫-০ গোলে জিতেছে বায়ার্ন।

লেভাদোভস্কির প্রথমার্ধের জোড়া গোলের পর একে একে জালের দেখা পান সের্গে জিনাব্রি, লেরয় সানে ও এরিক-মাক্সিম চুপো মোটিং।

প্রতিপক্ষ যেই হোক না কেন, দুমড়ে মুচড়ে এগিয়ে যাওয়াই যেন লক্ষ্য বায়ার্নের। সব মিলিয়ে এই মৌসুমে এখন পর্যন্ত বায়ার্ন ১০ ম্যাচ খেলে প্রতিপক্ষের জালে বল পাঠিয়েছে ৪৬ বার! বিপরীতে তারা হজম করেছে মাত্র ছয়টি।

কেবল গোল করাই নয়, ম্যাচে আক্রমণেও একচেটিয়া আধিপত্য থাকছে তাদের। দিনামোর বিপক্ষে এই ম্যাচেই যেমন প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ সময় বল দখলে রেখে গোলের উদ্দেশে ২২টি শট নেয় তারা, যার আটটি লক্ষ্যে। বিপরীতে ইউক্রেনের দলটির ছয় শটের দুটি ছিল লক্ষ্যে।

মৌসুমে সব মিলিয়ে মাঠে নামা প্রথম সাত ম্যাচের সবকটিতে জালের দেখা পাওয়া লেভানদোভস্কি গত শুক্রবার ঘরোয়া লিগে গয়টার ফুর্টের বিপক্ষে ছিলেন গোলশূন্য। গোলবিহীন সময়টাকে একেবারেই দীর্ঘ হতে দিলেন না তিনি।

ম্যাচ শুরুর দ্বাদশ মিনিটে সফল স্পট কিকে এগিয়ে নেন দলকে। দিনামোর ডি-বক্সে তাদের মিডফিন্ডার সিদরচুকের হাতে বল লাগলে পেনাল্টি পায় বায়ার্ন। আর ২৭তম মিনিটে টমাস মুলারের পাস ধরে বক্সে ঢুকেই ডান পায়ের জোরালো শটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন পোলিশ তারকা।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে লেভানদোভস্কির মোট গোল হলো ৭৭টি, ৯৮ ম্যাচে। তালিকায় তার ওপরে কেবল লিওনেল মেসি ও ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো।

৩৫তম মিনিট ব্যবধান আরও বাড়তে পারত; তবে ওয়ান-অন-ওয়ানে লেরয় সানের শট লাগে পোস্টে। ছয় মিনিট পর প্রতি-আক্রমণে ভালো সুযোগ পায় দিনামো। সতীর্থের থ্রু বল ধরে কার্লোস দে পেনার নেওয়া শট একজনের গায়ে লেগে জালে ঢুকতে যাচ্ছিল, শেষ মুহূর্তে কোনোমতে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক মানুয়েল নয়ার।

দ্বিতীয়ার্ধেও চাপ ধরে রাখা বায়ার্ন ৬৮তম মিনিটে তৃতীয় গোলের দেখা পায়। পাল্টা আক্রমণে লেরয় সানের মাঝমাঠ থেকে বাড়ানো থ্রু বল ধরে গতিতে সবাইকে পেছনে ফেলে ডি-বক্সে ঢুকে বুলেট গতির শটে গোলটি করেন জিনাব্রি।

ছয় মিনিট পর স্কোরলাইন ৪-০ করে সব অনিশ্চয়তার প্রায় ইতি টেনে দেন সানে। টমাস মুলারের পাস ধরে ডি-বক্সের বাঁ দিক থেকে আচমক অসাধারণ এক শটে ঠিকানা খুঁজে নেন তিনি।
৭৯তম মিনিটে লেভানদোভস্কিকে তুলে চুপো মোটিংকে নামান কোচ ইউলিয়ান নাগেলসমান। মাঠে নামার আট মিনিট পরই হেডে স্কোরশিটে নাম লেখান ক্যামেরুনের এই ফরোয়ার্ড।

দুই ম্যাচে শতভাগ সাফল্যে ৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে আছে বায়ার্ন।

আরেক ম্যাচে বার্সেলোনাকে ৩-০ গোলে হারানো বেনফিকা ৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে। ১ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে দিনামো কিয়েভ।

তলানিতে বার্সেলোনার পয়েন্ট শূন্য।

You May Also Like