বল হাতে মুস্তাফিজের চমকের পরেও হারলো রাজস্থান

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের কাছে হেরে প্লে অফে খেলার সমীকরণ জটিল করলো মুস্তাফিজদের রাজস্থান রয়্যালস। হায়দ্রাবাদের কাছে ৭ উইকেটে হারে তারা। সেই সাথে আইপিএলের প্লে অফের দৌরাত্ম আরও উত্তেজনাকর হয়ে গেল।

দুবাইয়ে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে সাদামাটা শুরু করেছিলো রাজস্থান রয়্যালসের ব্যাটসম্যানেরা। কিন্তু পরবর্তীতে দলপতি সাঞ্জু স্যামসনের ঝড়ো ইনিংসে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৬৪ রানের পুঁজি জড়ো করতে সক্ষম হয় মোস্তাফিজরা। ৭ চার ও ৩ ছক্কায় ৫৭ বলে ৮২ রানের দূর্দান্ত ইনিংস খেলেন সাঞ্জু। এছাড়াও ২৩ বলে ৩৬ রান করেন ওপেনার জাইসওয়াল। হায়দ্রাবাদের হয়ে সর্বোচ্চ ২ টি উইকেট নেন সিদ্ধার্থ কল।

১৬৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালোই করে সানরাইজার্সের দুই ওপেনার জেসন রয় ও ঋদ্ধিমান সাহা। তাদের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে দ্রুত রান জমা হতে থাকে স্কোরবোর্ডে।

সাহা ১৮ রানে ফিরে গেলেও ৪২ বলে ৬০ রানের নান্দনিক এক ইনিংস উপহার দেন ইংলিশ ব্যাটসম্যান জেসন রয়। এরপরে রয় আউট হবার পর ম্যাচ জয়ের বাকি কাজটুকু করেন কেন উইলিয়ামসন। ৯ বল বাকি থাকতেই ১৮.৩ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌছে যায় হায়দ্রাবাদ। ৪১ বলে ৫১ রানের অপরাজিত দায়িত্বশীল ইনিংস খেলে দলকে জেতান তিনি। এছাড়াও ১৬ বলে ২১ রানে অপরাজিত ছিলেন অভিষেক শর্মা।

ম্যাচ হারলেও নিজের বোলিং কারিশমা ঠিকই দেখিয়েছেন টাইগার পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। নিজের প্রথম ওভারে ৯ রান দিলেও দ্বিতীয় ওভারেই প্রীয়ম গার্গকে কট এন্ড বোল্ড এর ফাঁদে ফেলে প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠান কাটার মাস্টার। তবে সব বোলাররা যখন ব্যর্থ তখন নিজের ৩য় ওভারে দারুণ বোলিং করে আশা জাগালেও শেষ অব্দি জয়ের হাসিটা হাসতে পারেননি দ্য ফিজ, ১ উইকেট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাকে।

You May Also Like

About the Author: