৪ ওভারে ২ উইকেট, হায়দ্রাবাদের মেন্টর মুস্তাফিকে নিয়ে করলো ব্যপক বিশ্লেষণ

আইপিএল স্থগিত হওয়ার আগে বল হাতে আলো ছড়াচ্ছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। ৭ ম্যাচে নিয়েছিলেন ৮ উইকেট। করোনা মহামারির দাপটে গত মে মাসের শুরুতে স্থগিত হয় আইপিএলের চতুর্দশ আসর।

রাজস্থান রয়্যালসে প্রথমবার খেলছেন মোস্তাফিজ। স্থগিত আসর আবার ২২ গজে গড়ানোর পর আরো ধারালো টাইগার পেসার। পাঞ্জাব কিংসের বিপক্ষে উইকেটশূন্য থাকলেও ১৯তম ওভারে ৪ রান দিয়ে রাজস্থানকে ম্যাচে রেখেছিলেন।

শেষ ওভারে কার্তিক তিয়াগী ২ রানে জয় এনে দেন রাজস্থানকে। শনিবার দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে কাটার, স্লোয়ারে দাপুটে বোলিং করেছেন মোস্তাফিজ।
আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে মোস্তাফিজের দারুণ বোলিংয়ে ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৫৪ রানে থামে দিল্লি। হালকা ইনজুরি থাকায় ছিলেন না রাজস্থানের পেস আক্রমণের নেতা ক্রিস মরিস।

এই প্রোটিয়া পেসারের অনুপস্থিতিতে দায়িত্বটা ছিল মোস্তাফিজের উপর। অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসনের আস্থার প্রতিদান দিয়েছেন মোস্তাফিজ। পাওয়ার প্লে’তে প্রথম স্পেলে ১ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৬ রান দেন।

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নামা দিল্লি পাওয়ার প্লে’তে ২ উইকেট হারলেও চাপে পড়েনি। শ্রেয়াস আইয়ার ও অধিনায়ক ঋষভ পন্ত তৃতীয় উইকেটে গড়েন দারুণ জুটি। দুই ভারতীয় তারকা রান তুলছিলেন দ্রুত গতিতে।

তাদের থামাতে দ্বাদশ ওভারে মোস্তাফিজকে আক্রমণে আনেন রাজস্থান অধিনায়ক। চতুর্থ বলেই পন্তকে ফেরান কাটার মাস্টার। টাইগার পেসারের কাটারে বিভ্রান্ত পন্ত (২৪ বলে ২৪ রান) বোল্ড হয়ে সাজঘরের পথ ধরেন।

তার আগে শ্রেয়াস আইয়ারকে নিয়ে গড়েন ৪৭ বলে ৬২ রানের জুটি। দ্রুতই ফেরেন শ্রেয়াস (৩২ বলে ৪৩ রান)। অন্যদিকে নেমেই ঝড় তোলেন শিমরন হেটমায়ার। ক্যারিবিয়ান তারকাকে ফেরাতে আবারো মোস্তাফিজের দ্বারস্থ সঞ্জু স্যামসন।

মোস্তাফিজের দারুণ এক ইয়র্কারে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন হেটমায়ার (১৬ বলে ২৮ রান)। প্রথম ৩ ওভারে মোস্তাফিজ দেন মাত্র ১৩ রান। ইনিংসের শেষ ওভারে দিয়েছেন ৯ রান।

মোস্তাফিজের চার ওভারের স্পেলে কোনো বাউন্ডারি হাঁকাতে পারেনি দিল্লির ব্যাটসম্যানরা। ২২ রানে ২ উইকেট নিয়ে রাজস্থানের সেরা বোলার মোস্তাফিজ।

এদিকে বাউন্ডারী হজম না করা মুস্তাফিজের ভুয়সী প্রশংসা করেছেন সাবেক ভারতীয় তারকা ক্রিকেটার ভিভিএস লক্ষন।
মোস্তাফিজের স্কিল বেশ ভালোই জানা লক্ষ্মণের। আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদে খেলার সময় লক্ষ্মণের অধীনেই ছিলেন মোস্তাফিজ।

মোস্তাফিজের প্রশংসায় লক্ষণ বলেছেন, নিখুঁত লাইন-লেংথ আর স্লোয়ার-কাটার তো নিয়মিতই দেখা যায়। সঙ্গে যোগ হলে দারুণ কিছু ইয়র্কারও। সব মিলিয়ে দুর্দান্ত বোলিং উপহার দিলেন মুস্তাফিজুর রহমান।

You May Also Like

About the Author: