শারীরিক ক্ষমতা ১০ গুন বাড়িয়ে তুলতে যা খাবেন

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

আমা’দের রান্নাঘরে মশলার তালিকায় ‘কালোজিরা’র উপস্থিতি অতি অবশ্যই লক্ষ্য করা যায়।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

প্রায় সবরকম ত্রি তরকারি থেকে শুরু করে অম্বল জাতীয় পদেও এই বিশেষ মশলাটি ব্যবহৃত ‘হতে দেখা যায়।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

কালোজিরা আমা’দের যৌ’’নক্ষ’মতাকে বৃ’দ্ধি করতে সাহায্য করে। তার আগে আসুন দেখি কালোজিরা তে কী কী উপাদান আছে সেদিকে একবার চোখ বোলাই।কালোজিরার মধ্যে রয়েছে ফসফেট, লৌহ,ফসফরাস, কার্বো-হাইড্রেট ছাড়াও জী’বাণু নাশ’ক বিভিন্ন উপাদান সমূহ।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

কালোজিরার রয়েছে ক্যন্সার প্রতিরোধক কেরোটিন ও শক্তিশালী হর্মোন, প্রস্রাব সংক্রা’ন্ত বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধকারী উপাদান, পাচক এনজাইম ও অম্লনাশ’ক উপাদান এবং অম্লরোগের প্রতিষেধক।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

যেসমস্ত পু’রুষ বা নারী যৌ’’ন দুর্বলতায়ভোগেন তাদের জন্য কালোজিরা ভীষণ ভাবে উপকারী। তবে এর জন্য আপনাকে একটি বিশেষ ধরনের মিশ্রণ তৈরি করতে হবে।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

কালোজিরা চুর্ণ ও অলিভ অয়েল, ৫০ গ্রাম হেলেঞ্চার রস ও ২০০ গ্রাম খাটি মধু একত্রে মিশিয়ে সকালে ব্রেকফাস্টের পর এক চামচ করে খান। ফল পাবেন হাতেনাতে।
হস্ত মৈথুনের ক্ষতিকর দিক জানা প্রয়োজন। প্রত্যেকটি পুরুষের বাড়ন্ত বয়সে যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধি পায়। আর এ সময় বিভিন্ন সঙ্গের কারনে এই ভয়ানক অভ্যাসটি গড়ে উঠে।ফলে হস্ত মৈথুনের এমন একটি অভ্যাস যা একবার কাউকে পেয়ে বসলে ত্যাগ করা খুবই কষ্টকর হয়ে দাড়ায়। শুধু তাই নয়, অভ্যাসটি অনেকের যৌন জীবন বিপর্যস্ত করে তুলে। হস্তমৈথুনের কারণে দুই ধরনের সমস্যা হয়- মানসিক সমস্যা ও শারীরিক সমস্যা। হস্ত মৈথুনের ক্ষতিকর প্রভাব আমাদের জীবনে প্রভাব পড়ে।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

হস্ত মৈথুনের ক্ষতিকর প্রভাব গুলো আমাদের বাস্তব জীবনে প্রতিফলিত হয়।অনেকে এটি এত অধিক পরিমানে করে যে তার শরীর অল্প দিনের মধ্যে খারাপ হয়। আর হস্ত মৈথুনের ক্ষতিকর দিক গুলো জানা প্রয়োজন।অতিরিক্ত হস্ত মৈথুনের ফলে যে সমস্যা গুলো দেখা দেয়।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

ক) অকাল বীর্যপাত(Premature Ejaculation)। অর্থাৎ খুব অল্প সময়ে বীর্যপাত ঘটে থাকে। ফলে স্বামী তার স্ত্রীকে সন্তুষ্ট করতে সক্ষম হয় না। বৈবাহিক সম্পর্কে বিষাধ নেমে আসে।
খ)বিজ্ঞান বলে, কোনও পুরুষের থেকে যদি ২০ কোটির কম শুক্রাণু বের হয় তাহলে সে পুরুষ কোনও সন্তানের জন্ম দিতে পারেন না। অতিরিক্ত হস্ত মৈথুন পুরুষের যৌনাঙ্গকে দুর্বল করে দেয়।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

গ)Nervous system, heart, digestive system, urinary system এবং আরও অন্যান্য system ক্ষতিগ্রস্ত হয় । পুরো শরীর দুর্বল হয়ে যায় এবং শরীর রোগ-বালাইয়ের যাদুঘর হয়ে যায়।
ঘ) বীর্য পাতলা হয়ে যায় (Temporary Oligospermia)- Oligospermia হলে বীর্যে শুক্রাণুর সংখ্যা কমে যায়। তখন বীর্যে শুক্রাণুর সংখ্যা হয় ২০ মিলিয়নের কম। যার ফলে Male infertility দেখা দেয়।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

অর্থাৎ সন্তান জন্মদানে ব্যর্থতা দেখা দিতে পারে। একজন পুরুষ যখন স্ত্রীকে রমন করেন তখন তার পুরুষাঙ্গ থেকে যে বীর্য বের হয় সেই বীর্যে শুক্রাণুর সংখ্যা হয় ৪২ কোটির মত।
ঙ) চোখের ক্ষতি হয়।
চ) স্মরণ শক্তি কমে যায়।
ছ) মাথা ব্যথা হয় ইত্যাদি আরও অনেক সমস্যা হয় হস্ত মৈথুনের কারণে।
জ) আরেকটি সমস্যা হল Leakage of semen। অর্থাৎ সামান্য উত্তেজনায় যৌনাঙ্গ থেকে তরল পদার্থ বের হওয়া।
শারীরিক ব্যথা এবং মাথা ঘোরা।
ঝ) যৌন ক্রিয়ার সাথে জড়িত স্নায়ুতন্ত্র দুর্বল হওয়া অথবা ঠিক মত কাজ না করার পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়া।
ঞ) শরীরের অন্যান্য অঙ্গ যেমন: হজম প্রক্রিয়া এবং প্রসাব প্রক্রিয়ায় সমস্যা সৃষ্টি করে। দ্রুত বীর্যস্থলনের প্রধান কারণ অতিরিক্ত হস্ত মৈথুন।
প) হস্ত মৈথুনের ফলে অনেকেই কানে কম শুনতে পারেন।

You May Also Like