টি টুয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে যে কারনে বাদ পড়লো আফগানিস্তান!

তালেবানের অভ্যুত্থানের কারণে আফগানিস্তান ক্রিকেট দলের আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশ নেয়া অনিশ্চিত হয়ে গেছে। আফগানিস্তানের একের পর এক এলাকা দখল করে নিচ্ছে তালেবান। কান্দাহার, গজনি দখলের পর রাজধানী কাবুলের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে তালেবান।

তালেবানের আগ্রাসনে অনিশ্চিত হয়ে গেছে রশিদ খান ও মোহাম্মদ নবিদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশ নেয়া। অক্টোবর-নভেম্বরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বি গ্রুপে ভারতের সঙ্গে খেলার কথা রয়েছে আফগানিস্তানের। বিশ্বকাপ শুরুর আগে প্রস্তুতি জোরদার করার জন্য সাম্প্রতিক সময়ের মধ্যে দেশের বিভিন্ন ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুশীলন চালু হওয়ার কথা ছিল রশিদ খানদের।

কিন্তু তালেবান আগ্রাসনে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ব্যাহত হওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। তার কারণ ইতোমধ্যে তালেবানরা আফগানিস্তানের ৫টি স্টেডিয়ামের মধ্যে তিনটিই দখলে নিয়েছে। আফগানিস্তানের কান্দাহার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, খোস্ত সিটি স্টেডিয়াম এবং কুন্দুজ ক্রিকেট স্টেডিয়াম পুরোপুরি দখলে নিয়েছে তালেবান। মাজার-ই-শরিফের বলখ ক্রিকেট স্টেডিয়াম দখল নিয়ে আফগান সেনাদের সঙ্গে তালেবানদের লড়াই চলছে।

কাবুল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম আপাতত বন্ধ। এছাড়া জালালাবাদের গাজী আমানুল্লা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম এখনো রয়েছে আফগান সরকারের হাতে। দেশের বেশিরভাগ ক্রিকেটার কাবুলের স্টেডিয়ামেই অনুশীলন করেন। কিন্তু দেশের যা পরিস্থিতি, তাতে বিশ্বকাপের প্রস্তুতির জন্য সেই স্টেডিয়াম খুলে দেওয়ার সম্ভাবনা নেই। জাতীয় দলের অন্যান্য ক্রিকেটারও ব্যস্ত নিজেদের এবং পরিবারের জীবন রক্ষা করতেই।

ফলে কবে থেকে রশিদ খানদের বিশ্বকাপ প্রস্তুতি শুরু হবে তা অনিশ্চিত

You May Also Like

About the Author: