এতোদিন পরে বাংলাদেশে-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ নিয়ে মিডিয়ার সামনে বোমা ফাটালেন স্বয়ং রিকি পন্টিং

বাংলাদেশের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের হাতের ক্ষত এখনো ভুলতে পারেননি অস্ট্রেলিয়া। সফর শেষের কদিন পরও রয়ে গেছে রেশ। চলছে কারণ অনুসন্ধান। অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান ও অধিনায়ক রিকি পন্টিংয়ের মতে, কন্ডিশন সম্পর্কে সম্যক ধারণা না থাকা ও স্কিলের ঘাটতি মিলিয়ে শোচনীয় এই পরাজয় অস্ট্রেলিয়ার।

বাংলাদেশে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ৪-১ ব্যবধানে হেরে গেছে অস্ট্রেলিয়া। শেষ ম্যাচে ৬২ রানে গুটিয়ে গিয়ে নিজেদের সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড গড়েছে তারা। মিরপুরের মন্থর ও টার্নিং উইকেটে রান করার পথ খুঁজে পায়নি তাদের ব্যাটিং লাইন আপ।
এই সিরিজের আগে টি-টোয়েন্টিতে কখনোই বাংলাদেশের কাছে হারেনি অস্ট্রেলিয়া, কোনো সংস্করণেই ছিল না সিরিজ হারের অভিজ্ঞতা। বাংলাদেশ সফরে অসিদের এমন ভরাডুবির জন্য কন্ডিশনকে দুষছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিং। তাঁর মতে, বাংলাদেশের কন্ডিশন নিয়ে কম জানায় এমন সর্বনাশ হয়েছে।

এসইএন রেডিওতে বর্তমান টেস্ট অধিনায়ক টিম পেইনের সঙ্গে আলাপচারিতায় এমনটা উল্লেখ করেন সাবেক অধিনায়ক। রিকি পন্টিং বলেন, “এই কন্ডিশনে আমাদের জানাশোনার স্বল্পতা এবং স্কিলের ঘাটতি মূলত আমাদের সর্বনাশ ডেকে এনেছে। আমার স্মৃতিতে যতদিন মনে পড়ে, ততদিন ধরেই এটা আসলে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটের বড় দুর্বলতা”।

“বেশির ভাগ সময়ই যদিও ভুগতে হয়েছে টেস্টে। শ্রীলঙ্কায় ও ভারতে অবশ্য আমরা সাদা বলের ক্রিকেটে লড়াই করার পথ খুঁজে নিয়েছি কোনোভাবে। এটা (বাংলাদেশে হার) প্রমাণ করে যে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটে গভীরতা যতটা থাকা উচিত, তার ধারেকাছে নেই। কাজেই অনেক কাজ করতে হবে।’

এ ছাড়া বিশ্বকাপের আগে ক্রিকেটারদের আইপিএলে খেলাটা ইতিবাচক উল্লেখ করে তিনি বলেন, “যে ছেলেরা তিন-চার মাস ধরে খেলছে না, তাদের ছন্দে ফিরতে হবে বিশ্বের সেরা ক্রিকেটারদের বিপক্ষে উঁচু মানের ক্রিকেট খেলে”।

“বিশ্বকাপের একদম একই কন্ডিশনে তারা খেলবে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে। কোনো সন্দেহ নেই, এটিই হবে তাদের সেরা প্রস্তুতি। বিশ্বের সেরা ক্রিকেটারদের প্রায় সবাই থাকবে সেখানে। অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটারদের দিল্লি ক্যাপিটালসে চাই বলেই আমি শুধু এটা বলছি না।”

You May Also Like

About the Author: