তৃতীয় ম্যাচে জিততে বিশাল পরিকল্পনা সাজাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া

প্রথম দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে হারবার পর এখন সিরিজে টিকে থাকতে প্রতিটি ম্যাচেই জিততে হবে সফরকারী অস্ট্রেলিয়াকে। যে কোন একটি ম্যাচে পা হড়কালে সিরিজটি জিতে যাবে বাংলাদেশ।

এখন পর্যন্ত প্রতিটি ম্যাচেই অস্ট্রেলিয়াকে ভুগতে হয়েছে স্পিনের বিপরীতে। পাওয়ার প্লের ওভারগুলোতে দ্রুত উইকেট হারাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ্ রিয়াদ প্রথম ৬ ওভারের মধ্যে তিনজন স্পিনারকে ব্যবহার করেন।শেখ মাহেদী, নাসুম আহেমদ এবং সাকিব আল হাসানকে নিয়ে আলাদা করে পরিকল্পনা করতে হচ্ছে অস্ট্রেলিয়াকে।

দুই ম্যাচে শুধু স্পিনাররা প্রথম পাওয়ারপ্লেতে অস্ট্রেলিয়ার উইকেট নিয়েছে পাঁচ বার। সকালে প্রেস কনফারেন্সে অস্ট্রেলিয়ার স্পিনার অ্যাস্টন অ্যগার সেদিকটাতেই জোর দিয়েছেন বেশি। কিছুটা ইতিবাচক থাকতে তিনি বিশ্বকাপের আগে এই কন্ডিশনে খেলাটাকে ভালো প্রস্তুতিও বলেছেন।গতকাল ম্যাচ শেষে মিশেল মার্স বাংলাদেশের কন্ডিশনকে অস্ট্রেলিয়ার বাইরে সবথেকে কঠিন কন্ডিশন বলে অভিহিত করেছেন।

স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে বাংলাদেশের স্পিন নিয়ে কতটা বিব্রত অস্ট্রেলিয়া। ঠিক সেই প্রস্তুতি নিতেই কিনা আজ বিশ্রাম নেয়নি অস্ট্রেলিয়া। নেটে অনেক সময় নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানরা কাজ করেছে শুধুই স্পিন বোলিংয়ের বিপক্ষে ব্যাটিং নিয়ে৷ট্রেনারকে একাডেমী মাঠে খানিকটা সময় নিয়ে কথা বলতে দেখা গেছে স্পিনারদের সাথে৷

তবে ধারণা করা হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া নতুন পরিকল্পনা সাজাতে পারে তৃতীয় টি টুয়েন্টি ম্যাচে৷ সোয়েপসনকে খেলাতে পারে অস্ট্রেলিয়া।অ্যাস্টন অ্যাগার, জ্যাম্পা ও সোয়েপসনকে তিন স্পেলে ব্যবহার করতে পারেন ওয়েড।

তবে সেক্ষেত্রে কমিয়ে আনতে হতে পারে একজন পেসার। যদিও বাংলাদেশের বিপক্ষে বেশ সফল হ্যাজলউড, টাই এবং স্টার্ক।অস্ট্রেলিয়ার মুলত বিপদ বাড়াচ্ছে ওদের ব্যাটিং, সেটি থেকে বাঁচতেই কিনা আজ অনুশীলনে স্পিনার নিয়ে বাড়তি কাজ করেছে অস্ট্রেলিয়া।

You May Also Like

About the Author: