মেহেদির লক্ষ্য ডট বল করে প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানদের চাপে রাখা

ডানহাতি অফ স্পিনে প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানদের চেপে ধরতে বেশ পটু শেখ মেহেদি হাসান। বিশেষ করে পাওয়ার প্লেতে দারুণ কার্যকরী তরুণ এই অলরাউন্ডার। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম দুই টি-টোয়েন্টিতেও পাওয়ার প্লেতে দাপট দেখিয়েছেন তিনি।

নিজের সাফল্যের রহস্যের কথা বলতে গিয়ে মেহেদি জানিয়েছেন, ডট বল করে প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানদের চাপে রাখাই তাঁর মূল লক্ষ্য। তরুণ এই অফ স্পিনার আরও জানিয়েছেন, ব্যাটসম্যানকে কীভাবে তার দুর্বল জায়গায় বোলিং করে বা তাকে কীভাবে আটকানো যায় সেটা সব সময় মাথায় থাকে তাঁর।

প্রথম ম্যাচে ইনিংসের প্রথম বলেই অ্যালেক্স ক্যারিকে বোল্ড আউট করেছিলেন মেহেদি। যেখানে পুরো ম্যাচে ২২ রান দিয়ে এক উইকেট নেয়া মেহেদি করেছেন ১০টি ডট বল। দ্বিতীয় ম্যাচে আরও দুর্দান্ত ছিলেন ডানহাতি এই অফ স্পিনার।

অস্ট্রেলিয়াকে ৫ উইকেটে হারানোর দিনে মাত্র ১২ রানে ১ উইকেট নেন মেহেদি। যেখানে মাত্র ৩ ওভার বোলিং করে ১০টি ডট বল দিয়েছেন। পাওয়ার প্লেতে বোলিং করা চাপের হলেও মেহেদির পছন্দ সাদা বলের ক্রিকেটে নতুন বলে বল করা।

এ প্রসঙ্গে মেহেদি বলেন, ‘সাদা বলের ক্রিকেটে নতুন বলে আমি বোৃলিং করতে পছন্দ করি। প্রথমত যেটা মাথায় থাকে, ডট বল করা। পাওয়ার প্লেতে যত রান ছাড়া বল করা যায়। কারণ, পাওয়ার প্লেতে সবাই চায় সার্কেল ব্যবহার করতে। ছয় ওভার পর তো পাঁচ ফিল্ডার বাইরে থাকে। তাই বেশিরভাগ খেলোয়াড় ঝুঁকিটা নিতে চায় রান বড় করার জন্য। তাই পাওয়ার প্লেতে আমার লক্ষ্য থাকে যত ডট বল করা যায় এবং প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানকে যত সম্ভব চাপে রাখা যায়।’

এই স্পিন অলরাউন্ডার আরও বলেন, ‘বিশেষ করে, আমাদের এই কন্ডিশনে ব্যপারটা তো আরও বেশি, স্পিন সহায়ক উইকেটে খেলতে গেলে ব্যাটসম্যানদের কাজটা অতোটা সহজ হয় না। এই ক্ষেত্রে লাইন ও লেংথ খুব গুরুত্বপূর্ণ। ব্যাটসম্যানকে কীভাবে তার দুর্বল জায়গায় বোলিং করব বা তাকে কীভাবে আটকাব সেটা সব সময় মাথায় থাকে। প্রতিটা বলেই মনে হয়, ডট বল দিতে হবে। এইটা সব সময় মাথায় কাজ করে।’

You May Also Like

About the Author: