যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে খেলতে একে একে পাড়ি জমাচ্ছেন পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা

সর্বশেষ ২০১৫ সালের পর থেকে পাকিস্তান জাতীয় দলের হয়ে খেলতে দেখা যায়নি হামাদ আজমকে। গেল ৬ বছরে জাতীয় দলে সুযোগ না পেয়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমানোর পরিকল্পনা করছেন এই পেস বোলিং অলরাউন্ডার।

২০১১ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ওয়ানডেতে অভিষেক হয়েছিল আজমের। পরের বছর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক হয় তাঁর। জাতীয় দলের হয়ে এখন পর্যন্ত ১১ ওয়ানডে ও ৫টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন আজম। যেখানে ওয়ানডেতে ৮০ ও টি-টোয়েন্টিতে করেছেন ৩৪ রান। বল হাতে ওয়ানডেতে নিয়েছেন দুটি উইকেট।

২০১৯ সালে ওয়ানডে স্ট্যাটাস পেয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এবার তাদের স্বপ্ন আগামী ২০২৩ সালে ভারতে অনুষ্ঠেয় ওয়ানডে বিশ্বকাপে জায়গা করে নেয়া। সেই পরিকল্পনা মাথায় রেখে বিভিন্ন দেশের শীর্ষ পর্যায়ে খেলা সাবেক ও বর্তমানে খেলা চালিয়ে যাচ্ছেন এমন ক্রিকেটারদের দিকে নজর দিচ্ছে তারা।

যদিও সেখানে খেলার জন্য যুক্তরাষ্ট্র সরকারের দেয়া বেশ কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে ক্রিকেটারদের। নতুন নিয়ম অনুযায়ী, নিজের বর্তমান দেশ ছেড়ে সেই দেশের নাগরিকত্ব গ্রহণ করতে হবে। শুধু তাই নয়, সেখানে তিন বছর থাকার পরই কেবল যুক্তরাষ্ট্র জাতীয় দলের হয়ে খেলার সুযোগ পাবেন।

শুধু আজমই নয়, এর আগে আরও অনেকে নিজের দেশ ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে খেলতে দেশ ছেড়েছেন। সেই তালিকায় আছেন পাকিস্তান জাতীয় দলের হয়ে খেলা সামি আসলাম, দক্ষিণ আফ্রিকার কোরি অ্যান্ডারসন এবং ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ জয়ী পেসার লিয়াম প্লাঙ্কেট

You May Also Like

About the Author: