ব্রেকিং নিউজঃ সাকিব অনন্য এক রেকর্ডের সামনে দাড়িয়ে!

বাংলাদেশের ক্রিকেটে রেকর্ডের বরপুত্র তিনি। তার ঝুলিতে আছে অজস্র ব্যক্তিগত রেকর্ড। ক’দিন আগেই ওয়ানডে’তে দেশের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির জায়গা দখল করেছেন সাকিব আল হাসান।এবার অনন্য এক হাতছানি দিচ্ছে সাকিবকে।

টি-২০’তে একশ উইকেট আর এক হাজার রান নেই কারোর। অনন্য এই মাইলফলক সাকিব স্পর্শ করতে পারেন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আসন্ন সিরিজেই।

টি-২০ ক্রিকেটে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপন সাকিব আল হাসান। বিশ্বজুড়ে ঘরোয়া টি-২০ লিগগুলোতে সদর্পে বিচরণ করেন এই অলরাউন্ডার। ক্রিকেটের এই ফরম্যাটে বাংলাদেশ দল হিসেবে ধুঁকলেও সাকিব নিজেকে আলাদাভাবেই প্রমাণ করেছেন। ৩৩১ ম্যাচ খেলা সাকিব অভিজ্ঞতায় সমৃদ্ধ।

আইসিসির নিষেধাজ্ঞা শেষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার পর ব্যাটে বলে আগের ধার দেখা যায়নি। বিশেষ করে ব্যাট হাতে রান খরায় ছিলেন সাকিব। তবে জিম্বাবুয়ে সফরে তিন ফরম্যাটে নিজেকে ফিরে পেয়েছেন। ৬ ইনিংসে ৩৭ গড়ে করেছেন ১৮৫ রান।

আর ৮ ইনিংসে নিয়েছেন ১৬ উইকেট। আফ্রিকার মাটিতে বেশকিছু ব্যক্তিগত রেকর্ডও নিজের করে নিয়েছেন সাকিব। দেশের হয়ে ওয়ানডেতে এখন সর্বোচ্চ উইকেটের মালিক এখন মিস্টার সেভেন্টি ফাইভ।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বহুল প্রতীক্ষিত সিরিজ শুরুর আগেও সাকিবের সামনে দারুণ এক অর্জন। টি-২০’তে বাংলাদেশের হয়ে সবচেয়ে বেশি ৯২ ম্যাচ খেলেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এরপর মুশফিক ৮৬ আর সাকিব এই ফরম্যাটে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করেছেন ৭৯ ম্যাচে।

ফিট থাকলে খেলবেন অজিদের বিপক্ষে সিরিজের তিন ম্যাচেই। আর এই তিন ম্যাচে ৫ উইকেট পেলেই এমন এক বিরল রেকর্ড গড়বেন সাকিব, যা নেই আর কারও।

টি-২০’তে দেড় হাজারের বেশি রান আছে সাকিবের। আর বল হাতে ৯৫ উইকেট। আসন্ন সিরিজ আর ৫ উইকেট পেলেই বিশ্বের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে আন্তর্জাতিক টি-২০’তে ১০০ উইকেট ও হাজার রানের ডাবল স্পর্শ করবেন এই অলরাউন্ডার।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এখন পর্যন্ত মাত্র ৪টি টি-২০ খেলেছে বাংলাদেশ। যার সবই বিশ্বকাপে। এই চার ম্যাচের সব কটিতেই খেলা সাকিব উইকেট ও রান শিকারেও সবার চেয়ে এগিয়ে। প্রায় ৩৬ গড়ে ১৪৩ রান করার পাশাপাশি ২০ গড়ে তিনি নিয়েছেন সর্বোচ্চ ৫ উইকেট।

বাংলাদেশের বিশ্বকাপ পরিকল্পনায় গুরুত্বপূর্ণ অস্ট্রেলিয়া সিরিজ। মাঠে ব্যক্তিগত অর্জনগুলো পূর্ণতা পেলে শুধু সাকিব না, তাতে লাভবান হবে বাংলাদেশ দলও।

You May Also Like

About the Author: