ব্রেকিং নিউজ : মিরাজ এবং তাসকিনের ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে জিম্বাবুয়েকে ২২০ রানে হারিয়ে টেস্ট সিরিজ জয়লাভ করলো বাংলাদেশ।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট ম্যাচে ২২০ রানের জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ। এই জয়ের ফলে প্রথমবারের মতো জিম্বাবুয়ের মাটিতে টেস্ট সিরিজ জয়লাভ করলো টাইগাররা। বাংলাদেশের দেওয়া ৪৭৭ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে তাসকিন আহমেদের ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে ২৫৬ রানে অলআউট হয় জিম্বাবুয়ে।

পঞ্চম দিনের শুরুতেই সাত সকালে তিন ক্যাচ মিস। বাংলাদেশের ফিল্ডিং দেখে মনে হচ্ছিল টেস্ট ম্যাচটা জিততেই চায় না দল! এগিয়ে এলেন মিরাজ। এক ওভারেই নিলেন জোড়া উইকেট। তাতে স্বস্তি ফেরে দলে। পরের দুই ওভারে তাসকিনের জোড়া ধাক্কা। ১৯ বলের ব্যবধানে ৪ উইকেট তুলে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ।

ডানহাতি অফস্পিনার মিরাজ প্রথমে ডিনো মায়ার্সকে শর্ট মিড উইকেটে তালুবন্দি করান। এরপর টিমিসেন মারুমাকে এলবিডব্লিউ করেন। প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট নেওয়া মিরাজ এখন পর্যন্ত পেয়েছেন ৩ উইকেট। তাসকিন আহমেদ পরের ওভারে ফেরান রয় কাইয়াকে।

ডানহাতি ব্যাটসম্যানকে এলবিডব্লিউ করান তাসকিন। এ টেস্টে ‘পেয়ারের’ তিক্ত স্বাদ পেলেন রয় কাইয়া। প্রথম ইনিংসের পর দ্বিতীয় ইনিংসেও রানের খাতা খুলতে পারেননি তিনি। তাসকিন এক ওভার পর ফিরে এসে বোল্ড করেন উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান চাকাবাকে।

অষ্টম উইকেটে প্রতিরোধ গড়েছিলেন ভিক্টর নিয়াউচি ও ডোনাল্ড টিরিপানো। মধ্যাহ্ন বিরতির আগে-পরে ৯৩ বলে ৩৪ রানের জুটি গড়ে বাংলাদেশের জয়ের অপেক্ষা বাড়িয়েছেন তারা। পেসার তাসকিন ভাঙলেন এ জুটি। তার বাউন্সারে স্লিপে ক্যাচ তোলেন নিয়াউচি।

প্রথম ইনিংসে শূন্য রানে আউট হওয়া ডোনাল্ড তিরিপানোর এই ইনিংসে তুলে নেন হাফ সেঞ্চুরি। মুজারবানিকে সাথে নিয়ে ৪১ রানের পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন তিনি। গলায় কাঁটা হয়ে ওঠা এই দুইজনের পার্টনারশিপ ভাঙেন এবাদত হোসেন।

৫২ রান করে উইকেট কিপার লিটন দাসের হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিরিপানো। বল হাতে ক্যারিয়ার সেরা বোলিং করেছেন তাসকিন আহমেদ। ৪ টি লিখেছেন তিনি। এছাড়াও ৪টি উইকেট নিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। একটি করে উইকেট নিয়েছেন সাকিব আল হাসান এবং ইবাদত হোসেন।

গতকাল বড় রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি জিম্বাবুয়ের। ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে বল বলতে আসা তাসকিন আহমেদের বলে স্লিপে ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফিরে যান ওপেনার মিল্টন সুম্বা। তবে বাংলাদেশের জন্য ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠেন অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেলর।

ভয়ঙ্কর হয়ে উঠা ব্রেন্ডন টেলরকে নার্ভাস নাইনটিনে আউট করে সাজঘরে ফেরালেন টাইগার বোলিং অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান মিরাজ। মাত্র ৩৩ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেওয়া জিম্বাবুয়ের এই অধিনায়ককে ৯২ রানের প্যাভিলিয়নে ফেরেন মেহেদী হাসান মিরাজ। এর পরেই ৭ রান করা তাকুদজওয়ানাশে কৈতানোকে প্যাভিলিয়নের ফেরান সাকিব।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট ম্যাচে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ইনিংসে ৪৬৮ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ। জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ইনিংসে ২৭৬ রানে অলআউট হয় জিম্বাবুয়ে। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে ২৮৪ রানে ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ।

You May Also Like

About the Author: